চসিকের সাথে বিআরটিসির চুক্তি, কোটি টাকা সাশ্রয়ের আশা

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশনের (বিআরটিসি) মাধ্যমে যানবাহন মেরামতের মাধ্যমে প্রতি বছর কয়েক কোটি টাকা সাশ্রয় করার আশা দেখছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক)।

মঙ্গলবার দুপুরে টাইগারপাসস্থ চসিক কার্যালয়ে এ উপলক্ষে প্রতিষ্ঠান দুটির মাঝে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশের প্রথম সিটি কর্পোরেশন হিসেবে চসিক বিআরটিসির সাথে গাড়ি মেরামতের জন্য চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। বিআরটিসির মাধ্যমে চসিকের গাড়িগুলো সবচেয়ে সেরা মানের সেবা পাবে যা চসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনাকে করবে আরো গতিশীল, সাশ্রয় হবে বিপুল রাজস্ব।

“এ চুক্তির আওতায় আমাদের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও দাপ্তরিক কাজে ব্যবহৃত গাড়িগুলো মেরামত করবে বিআরটিসি। প্রাথমিকভাবে চুক্তির আওতায় ১৫৭ টি বর্জ্যের গাড়ি মেরামত করা হবে, ধীরে ধীরে চসিকের ৬০১ টি গাড়ির সবগুলোই বিআরটিসি মেরামত করবে। ফলে, আমাদের অনেকগুলো অচল গাড়ি সচল হবে ফলে গাড়ির আয়ু বৃদ্ধি পাবে, বাহির থেকে কম সংখ্যক গাড়ি ভাড়া নিতে হবে। পাশাপাশি সরকারি প্রতিষ্ঠান কাজ করায় গাড়ি মেরামতের ব্যয়ে স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে। এ চুক্তির ফলে চসিকের প্রতি বছর কয়েক কোটি টাকা সাশ্রয় হবে।”

অনুষ্ঠানে চসিকের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলাম, প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ আকবর আলী, নির্বাহী প্রকৌশলী মির্জা ফজলুল কাদের। বিআরটিসির পক্ষে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক (অর্থ ও হিসাব) ড. অনুপম সাহা, মহাব্যবস্থাপক মেজর মো. জাহাঙ্গীর হোসেন আজাদ, ম্যানেজার মো. মফিজ উদ্দিন, মো. জুলফিকার আলী। আরো উপস্থিত ছিলেন চসিকের কাউন্সিলর শৈবাল দাস সুমন, সচিব খালেদ মাহমুদ, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা লুৎফুন নাহার, মেয়রের একান্ত সচিব মো. আবুল হাশেম, প্রধান হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির চৌধুরী, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মুনিরুল হুদা, তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলী বিপ্লব দাশ, ঝুলন কুমার দাশসহ প্রকৌশল বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on linkedin
LinkedIn
Share on email
Email

সম্পকিত খবর