মোহরা ওয়ার্ডের উন্নয়নে শত কোটি টাকা বিনিয়োগ করছি: মেয়র রেজাউল

একসময়ের অবহেলিত মোহরা ওয়ার্ডের উন্নয়নে শত কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

মঙ্গলবার মোহরা ওয়ার্ডে দেওয়ান মহসিন সড়ক, পল্টনিয়া তালুকদার সড়ক, কাজী বাড়ি সড়ক এবং বাদামতল মোড় সংলগ্ন শাহাজী চত্বর উদ্বোধন করার পর সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, শহরের প্রান্তিক অঞ্চলে থাকায় ভৌগোলিক কারণে যে কয়েককটি ওয়ার্ড পিছিয়ে আছে তার একটি মোহরা। একারণে মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর এই প্রান্তিক অঞ্চলের মানুষের ভাগ্যবদলে ব্যাপক কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করি।

“বর্তমানে ১০ টি উপ-প্রকল্পের মাধ্যমে মোহরা ওয়ার্ডে ৬৭ কোটি টাকা বিনিয়োগের কার্যক্রম চলমান আছে। এছাড়া, আরো ফান্ড যোগ করে মোট ১০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করে পুরো মোহরার যোগাযোগ ব্যবস্থাকে পূর্ণাঙ্গ রূপ দেয়া হবে। মোহরা ওয়ার্ডটি পতেঙ্গা, ইপিজেড ও বিমানবন্দরের সন্নিকটে হওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হলে এ ওয়ার্ডেও শিল্পায়নের মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়ে মানুষের ভাগ্য বদল হবে।”

বর্তমান সরকার দরিদ্র জনগণের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করছে জানিয়ে মেয়র বলেন, শেখ হাসিনার মূল লক্ষ্য দরিদ্রদের ভাগ্যোন্নয়ন। একারণে টিসিবির মাধ্যমে স্বল্প আয়ের মানুষদের ন্যুনতম মূল্যে খাদ্য সরবরাহ করা হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের বছরের প্রথম দিনে নতুন বই ও বৃত্তি দেয়া হচ্ছে। ফ্লাইওভার, টানেল, ইকোনোমিক জোন, এক্সপ্রেসওয়ে দিয়ে চট্টগ্রামকে বিশ্ববাণিজ্যের হাব হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে৷

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম বলেন, চট্টগ্রামের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লক্ষ কোটি টাকা ব্যয় করেছেন। একারণে চট্টগ্রামের মানুষ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার পক্ষেই আগামী নির্বাচনে মত দিবেন। তবে, নানামুখী ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ কর‍তে হবে। ঘরে বসে থাকা চলবেনা৷ বিশেষ করে আগামী জাতীয় নির্বাচনে রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি সাধারণ নারী ভোটারদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে৷

সভায় কাউন্সিলর কাজী নুরুল আমিন মামুনের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর মোঃ মোরশেদ আলম, প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মুনিরুল হুদা, রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড মাসুম চৌধুরী, মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী বিপ্লব দাশ, মোঃ শাহিনুল ইসলাম, নির্বাহী প্রকৌশলী আবু ছিদ্দীক, রিফাতুল করিম। হানিফ খানের সঞ্চালনায় সভায় স্থানীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ’র সিনিয়র সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, এস এম আনোয়ার মীর্জা, মো. ফারুক, হাসান মুরাদ চৌধুরী, নাজিমুদ্দিন চৌধুরী, শেখ আহম্মদ, জমির উদ্দিন, মো. জসিম, মো. আরজু, মো. কফিল, মো. তসলিম, মো. আয়াজ, মো. শফি, মো. খোকন, মো. সরোয়ার।

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on linkedin
LinkedIn
Share on email
Email

সম্পকিত খবর