রাজনৈতিক সৌহার্দ্যের সংস্কৃতিকে এগিয়ে নিতে চট্টগ্রামে কর্মশালা

চট্টগ্রামে রাজনৈতিক সৌহার্দ্য আরও এগিয়ে নিতে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন রাজনীতিবিদ, যুব ‍ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা। মঙ্গলবার চট্টগ্রাম শহরের জিইসি মোড়স্থ কপার চিমনী রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত ‘রাজনৈতিক সৌহার্দ্যের সংস্কৃতিকে এগিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা’ শীর্ষক কর্মশালা থেকে এ অঙ্গীকার ব্যক্ত করা হয়। দেশের প্রধান তিনটি রাজনৈতিক দলের সদস্যদের নিয়ে গঠিত মাল্টিপার্টি অ্যাডভোকেসি ফোরাম (এমএএফ) চট্টগ্রামের-এর উদ্যোগে এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দের পাশাপাশি এতে অংশ নেন নগরীর বিভিন্ন যুব সংগঠনের প্রতিনিধিরাও। কর্মশালায় রাজনৈতিক সৌহার্দ্যের ধারণা এবং সৌহার্দ্যপূর্ণ রাজনীতি চর্চার গুরুত্ব ও কৌশল সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয় এবং আগামী দিনে চট্টগ্রামে রাজনৈতিক সৌহার্দ্যের সংস্কৃতিকে আরো শক্তিশালী করার লক্ষ্যে একটি কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। ইউকে এইড-এর অর্থায়নে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল বাস্তবায়িত বাংলাদেশ স্ট্রেনদেনিং পলিটিক্যাল অ্যাকাউন্টাবিলিটি ফর সিটিজেন এমপাওয়ারমেন্ট (বি-স্পেইস) প্রকল্পের সহযোগিতায় এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

এমএএফ চট্টগ্রামের প্রেসিডেন্ট আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার যুগ্ম সাধারন সম্পাদক প্রকৌশলী সনাতন চক্রবর্তী বিজয় এতে সভাপতিত্বে অনুষ্টিত কর্মশালার শুরুতে উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য উপস্থাপন করে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল চট্টগ্রামের সিনিয়র রিজিওনাল ম্যানেজার মোঃ সদরুল আমিন ও কর্মশালা পরিচালনা করেন রিজিওনাল কো-অর্ডিনেটর মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান ।

কর্মশালায় সমাপনী পর্বে বক্তব্য রাখেন মাল্টিপার্টি এডভোকেসী ফোরাম চট্টগ্রামের প্রেসিডেন্ট ও আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার যুগ্ম সাধারন সম্পাদক প্রকৌশলী সনাতন চক্রবর্তী বিজয়, মাল্টিপার্টি এডভোকেসী ফোরাম চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন চৌধুরী, ফোরামের সহসভাপতি ও জাতীয় মহিলা পার্টির সহসভাপতি তাজলিনা আক্তার মণি, ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির প্রেসিডেন্ট কায়েস মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ আদর । এই কর্মশালা বাস্তবায়নে সার্বিক সহযোগিতা করেন ডেমোক্রেসী ইন্টারন্যাশনাল চট্টগ্রামের ইলেকটোরাল প্রোগ্রাম এসোসিয়েট তামান্না আহমেদ বহ্নি ও অপারেশন এসিসট্যান্ট আবুল হাসান চৌধুরী রণি।

মাল্টিপার্টি এডভোকেসি ফোরামের সদস্যবৃন্দ ছাড়াও কর্মশালায়, যুব রেড ক্রিসেন্ট, বিএনসিসি, লিও, স্কাউট, সিইউডিএস, ভোরের আলো, ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইয়্যুথ এলায়েন্স, আইওয়াইসিএম, ওয়াই্এসডিএ, পূর্বা, পাথ টিউলিপসহ বিভিন্ন যুব সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশ নিয়ে রাজনৈতিকদগুলোর কাছে নিজেদের প্রত্যাশা তুলে ধরেন।

 

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on linkedin
LinkedIn
Share on email
Email

সম্পকিত খবর