১৫ ও ২১ আগস্ট বাঙালি জাতিসত্তা হননের কলঙ্কের দাগ -আবুল হোসেন

চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় শ্রমিক লীগ সিবিএ-ননসিবিএ সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব শ্রমিক নেতা আবুল হোসেন আবু বলেছেন, আগস্ট মাস বাঙালি জাতিসত্তা হননের একটি দুর্বিনীত কালো অধ্যায় ও কলংকের দাগ। ৭৫ এর ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে দেশী ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের নীলকনশা অনুযায়ী বঙ্গবন্ধুকে স্ব পরিবারে হত্যা করে যেসকল ঘাতকরা কালো অধ্যায়ের সূচনা করেছিল তারাই ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বাঙালি জাতিসত্তা হননের অসমাপ্ত কাজ সমাধা করার জন্য শেখ হাসিনাকে হত্যা অপচেষ্টায় গ্রেনেড হামলা চালিয়েছিল। তাই ১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্টের ঘটনা একই সূত্রে গাঁথা। এই দুঃসহ ট্র্যাডেজির কুশীলব জিয়া এবং তার পুত্র তারেক জিয়া। ১৫ আগস্টের আত্মস্বীকৃত হত্যাকারীদের বিচারিক রায় ফাঁসির আদেশ কার্যকর হলেও ২১ আগস্টের ঘাতক ও কলাকুশলীদের বিচারের রায় হলেও তা এখনো কার্যকর হয়নি। এই রায় কার্যকর না হওয়ায় এখনো জাতির ঘাড়ে অশনী সংকেত চেপে বসেছে। এই অবস্থা থেকে আমাদেরকে অবশ্যই পরিত্রাণ পেতে হবে। তাই প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শ্রমিক কর্মচারীদের ঐক্যবদ্ধভাবে ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় রাজপথে থাকতে হবে। তিনি আজ বুধবার সকালে আগ্রাবাদ বিটিসিএল কম্পাউন্ড সিবিএ কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু ও ১৫ আগস্টের শহীদদের ৪৮তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালনোপলক্ষে বিটিসিএল শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেল ইউনিয়নের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। বিটিসিএল চট্টগ্রাম অঞ্চলের সিবিএ সভাপতি সাবের আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, রায়হান উদ্দীন, আবুল কালাম, মুকবুল আহমদ, সাজেদুল হক, টিপু সুলতান, মীর ফারুক, আবদুস শুক্কুর, জানে আলম, একেএম মোমিনুল ইসলাম, আবু আহমেদ, মনির হোসেন, কৃষ্ণা চক্রবর্তী, আব্দুল ওহাব, আবুল বাসার, নাজমুল হক প্রমুখ।
আলোচনা সভা শেষে আগ্রাবাদ বিটিসিএলস্থ এবাদতখানায় বঙ্গবন্ধু ও ১৫ আগস্টের শহীদদের রুহের মাগফেরাত এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘ নীরোগ জীবন কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on linkedin
LinkedIn
Share on email
Email

সম্পকিত খবর